আর্টিফিশিয়াল নিউরাল নেটওয়ার্ক

সাধারণ কম্পিউটার প্রোগ্রাম গুলো স্টুপিড। যেভাবে প্রোগ্রাম করা হয়, সে ভাবেই কাজ করে। নিজ থেকে কিছুই করতে পারে না। কিছু বিজ্ঞানী ভাবল মানুষ যেভাবে শিখে, সে ভাবে যদি কম্পিউটার ও শিখতে পারে, তাহলে তো কম্পিউটার প্রোগ্রাম গুলো স্মার্ট হয়ে উঠতে পারবে। নিজে নিজে শিখতে পারবে। শেখার উপর ভিত্তি করে কাজ করতে পারবে। কম্পিউটার প্রোগ্রামকে মানুষ যে ভাবে শিখে, কাজ করে, সেভাবে তৈরি করার প্রচেষ্ঠা থেকেই আর্টিফিশিয়াল নিউরাল নেটোওয়ার্ক শাখাটি সৃষ্টি হয়।

মানুষের নার্ভ সিস্টেমের নিউরাল নেটওয়ার্ক কে অনুকরণ করে আর্টিফিশিয়াল নিউরাল নেটওয়ার্ক উৎপত্তি। কম্পিউটারকে আরো স্মার্ট, মানুষের ব্রেইন যেভাবে কাজ করে, সেভাবে তৈরি করতে নিউরাল নেটওয়ার্ক সাহায্য করে। মানুষের ব্রেইন অনেক অনেক কমপ্লিকেটেড। পুরা সিস্টেমটা কিভাবে কাজ করে, তা জানার জন্য রিসার্চাররা এখনো চেষ্টা করে যাচ্ছে। আমরা যা জানি তা হচ্ছে ব্রেইনের ছোট ছোট সেল গুলো হচ্ছে নিউরন। এই নিউরন গুলোই আমাদের মেমরি গুলো ধারণ করে। চিন্তা করে। ১০০ বিলিয়ন এর ও বেশি নার্ভ সেল বা নিউরন এর সমন্বয় মানুষের ব্রেইন গঠিন। মানুষ বা জীবের নিউরন গুলো একটা আরেকটার সাথে এক্সিয়ন দিয়ে কানেক্টেড।

আর্টিফিশিয়াল নিউরাল নেটওয়ার্ক অনেক গুলো নডের সমন্বয় তৈরি। যেগুলো মানুষ বা জীবের নিউরনকে অনুকরণ করে তৈরি করা হয়েছে। এই এক একটা নড আরেকটা নড এর সাথে লিঙ্কের সাথে কানেক্টেড। এই লিঙ্ক গুলো দিয়েই এক একটা নড এক একটা নডের সাথে যোগাযোগ করে। নড গুলো যে কোন ইনপুটের উপর সিম্পল অপারেশন চালাতে পারে। এরপর পরবর্তী নডে ট্রান্সফার করে। একটা নড যে আউটপুট ট্রান্সফার করে, তাকে বলা হয় নড ভ্যালু।

এক একটা লিঙ্ক এক একটা Weight ক্যারি করে। আর্টিফিশিয়াল নিউরাল নেটওয়ার্ক নিজে নিজে শিখে নিতে পারে। শেখার উপর ভিত্তি করে লিঙ্ক এর weight পরিবর্তন হয়।

দুই ধরনের আর্টিফিশিয়াল নিউরাল নেটওয়ার্ক রয়েছে।

  •  Free Forward ANN
  •  Feedback ANN

ফ্রি ফরওয়ার্ড আর্টিফিশিয়াল নিউরাল নেটওয়ার্কে ইনফরমেশন প্রবাহ এক দিকে হয়। ফিডব্যাক আর্টিফিশিয়াল নিউরাল নেটওয়ার্কে ইনফরমেশন গুলোর প্রবাহ সব দিকে হতে পারে, ব্যাক নডে আসতে পারে। লুপ হতে পারে।

মেশিং লার্নিং এ আর্টিফিশিয়াল নিউরাল নেটওয়ার্ক ব্যবহার করা হয়। ANN নিজে নিজে শিখতে পারে। শিখে শিখে নড গুলোর লিঙ্ক এর ওয়েট পরিবর্তন করে নিতে পারে। আস্তে আস্তে ANN প্রিসাইসলি কাজ করতে পারে। আর্টিফিশিয়াল নিউরাল নেটওয়ার্ক এর প্রচুর ব্যবহার রয়েছে। আর্টিফিশিয়াল নিউরাল নেটোওয়ার্ক ছাড়া এখন মেশিং লার্নিং কল্পনাও করা যায় না। ফেসবুকে ছবি আপলোড করার পড় কার ছবি তা ডিটেক্ট করতেও ANN ব্যবহার করা হয়। ইমেজ ক্লাসিফিকেশন, ন্যচারাল ল্যাঙ্গুয়েজ প্রসেসিং, এরোস্পেস, শেল্ফ ড্রাইভিং কার, মেডিকেল, ফাইন্যন্স সহ অনেক গুলো ফিল্ডে ANN ব্যবহার করে অনেক উন্নত সিস্টেম তৈরি করা সম্ভব।


One thought on “আর্টিফিশিয়াল নিউরাল নেটওয়ার্ক

  1. বেসিক ধারণা নেবার জন্য ঠিক আছে, তবে এতো জটিল বিষয়ের উপরে এতো অল্প আলোচনা যথেষ্ট নয়। সাথে অনেক নতুন শব্দ রয়েছে, যা বুঝানোর প্রয়োজন ছিল, আরো বিস্তারিত লিখতে উপকৃত হতাম, তবে এথেকেই অনেকে উপকৃত হবে হয় তো 🙂

    যাই হোক, ধন্যবাদ 🙂

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *