মার্কডাউন মার্কআপ ল্যাঙ্গুয়েজ সম্পর্কে ধারণা ও বেসিক সিনট্যাক্স গুলো

মার্কডাউন হচ্ছে একটা মার্কআপ ল্যাঙ্গুয়েজ যা মূলত ডকুমেন্ট ফরমেটের জন্য ব্যবহৃত হয়। বিভিন্ন ডকুমেন্টেশনে সর্বাধিক ব্যবহৃত হয় এই মার্কডাউন ল্যাঙ্গুয়েজ। এ ছাড়া স্ল্যাকে এই মার্কডাউন ব্যবহার করা হয় মেসেজিং এর জন্য। মার্কডাউনে কোন কিছু লেখা সহজ। বাড়তি কোন টুলের প্রয়োজন হয় না। যে কোন টেক্সট এডিটরে লেখা যায়। মার্কডাউনে কোন কিছু লিখে তা ওয়ার্ড, পিডিএফ, HTML, EPUB ইত্যাদি ফরমেটে ডিস্ট্রিবিউট করা যায়।

আমরা ব্যাসিক কিছু মার্কডাউন সিনট্যাক্স শিখব যেন গিটহাব প্রজেক্টের readme ফাইল সুন্দর করে সাজিয়ে লিখতে পারি। যে প্রজেক্টের readme ফাইল যত সহজে মানুষ পড়তে পারে, তা তত বেশি গ্রহণযোগ্যতা পায়। নিচের সিনট্যাক্স গুলো এখানে এই মার্কডাউন এডিটরে গিয়ে লিখে আউটপুট দেখা যাবে।

মার্কডাউনে প্যারাগ্রাফ লেখা

মার্কডাউনে যেকোন টেক্সটই প্যারাগ্রাপ হিসেবে দেখাবে। এই জন্য স্পেশাল কোন কিছু করতে হবে না।

This is simple paragraph
and this is also the part of line.

This is another paragraph.

এন্টার প্রেস করে আমরা নতুন প্যারাগ্রাফ শুরু করতে পারি।

কোন কিছু বোল্ড করে লেখার জন্যঃ
**bold paragraph**
ইতালিক ভাবে লেখার জন্যঃ
*Italic*

হেডলাইন

মার্কডাউনে হেডলাইন লেখার জন্য হ্যাসট্যাগ ব্যবহার করা হয়। একটা # মানে হচ্ছে মেইন হেডলাইন। দুইটা # মানে হচ্ছে সাবহেডলাইন এভাবে।

# Main Heading
## Sub Heading
### may be used as topic heading
#### sub-topic headings
##### another heading
###### smallest heading

যার আউপুট পাবো এমনঃ

লিঙ্ক

যে কোন ডকুমেন্টের সবচেয়ে দরকারি জিনিস হচ্ছে লিঙ্ক। তো মার্কডাউনে লিঙ্ক ব্যবহার করার সিনট্যাক্স হচ্ছেঃ

[লিঙ্ক টাইটেল](https://yourlink.com)

ইমেজ

অনেক সময় অনেক বড় প্যারাগ্রাপ দিয়ে কোন কিছু বুঝানো থেকে একটা ইমেজ দিয়ে বুঝানো সহজ হয়। মার্ক ডাউনে ইমেজ ব্যবহার করার সিনট্যাক্সঃ

![Image title](https://example.com/my-awesome-pic.png)

লিঙ্ক সহ ইমেজঃ

[![পাইথন প্রোগ্রামিং বই](https://jakir.me/wp-content/uploads/2022/02/python-programing-front-cover-01-201x300.jpg "পাইথন প্রোগ্রামিং বই")](https://jakir.me "পাইথন প্রোগ্রামিং বই")

লিস্ট

অর্ডারড লিস্ট:
1. ordered 1
2. ordered 2
3. ordered 3

আনঅর্ডারড লিস্ট:

- unordered 1
unordered 2
unordered 3

কোটেশন

এঙ্গেল ব্র্যাকেট (>) লিখে এরপর যে কোন কোটেশন লেখা যায়। যেমনঃ

> Whoever is happy will make others happy too. -Anne Frank

কোড

অনেক সময় আমাদের কোড লেখার দরকার হতে পারে। কোড গুলো লিখতে হয় ব্যাকটিক্স (“) এর মাঝে।

‘print (Hello World!)’

উপরের মার্কডাউন সিনট্যাক্স গুলো কারো মুখস্ত করা থাকতে হবে না। ব্যবহার করতে করতে অভ্যস্ত হয়ে যাবো। তখন অটোম্যাটিকই মুখস্ত হয়ে যাবে। শুরুর দিকে চাইলে যে কোন মার্কডাউন এডিটর ব্যবহার করতে পারি। যেমনঃ https://stackedit.io/app

Leave a Reply