স্বপ্নটাকে লিখে রাখি

সবার লক্ষ্য থাকে। লক্ষ্য অনুযায়ী কাজ করতে হয়। এটা সবাই জানি। কিন্তু আমরা মানুষ গুলো এত্ত এত্ত কিছু নিয়ে চিন্তা করি যে আমাদের লক্ষ্য কয়েক দিন পর হারিয়ে যায়। সব কিছু আবার নতুন করে শুরু করি। আবার লক্ষ্য সেট করি। আবার হারিয়ে যায়… এভাবে চলতে থাকে।

যে জিনিস গুলো আমরা সত্যিই করতে চাই, সে গুলো যেন বার বার মনে পড়ে, তার জন্য সেগুলো লিখে ফেললে দারুণ কাজে দেয়। আমরা যে বিষয় লিখি, তা অনেকদিন মনে থাকে। সাইকোলোজিক্যাল ব্যপার। আমরা এটাকে কাজে লাগাতে পারি।

How a Password Changed My Life নামে একটা আর্টিকে আছে। গুগলে সার্চ করলেই পাওয়া যাবে। পড়া না থাকলে পড়ে নিতে বলব। যে জিনিস করতে চেয়েছে, তা পাসওয়ার্ড হিসেবে সেট করেছে। এরপর বাকি গল্প বিস্ময়কর। সে জন্যই আর্টিকেলটা পড়তে হবে।

নিজের স্বপ্নের কথা, নিজের ভবিষ্যৎ এর গল্প কাউকে বললে কেউ বিশ্বাস করে না। উলটো পাগল টাগল ভাবতে পারে। কিন্তু নিজের স্বপ্নের কথা নিজে জানা খুব দরকার। নিজেকে বার বার নিজের স্বপ্নের কথা মনে করিয়ে দেওয়া দরকার। লিখে রাখলে পরে যে কোন সময়ই তা দেখে নেওয়া যাবে।

আজকে আমরা যে আইডিয়াটি খুব সুন্দর ভাবে চিন্তা করতে পারব, একই আইডিয়া অন্যদিন চিন্তা করলে অন্যরকম ফলাফল দিবে। হয়তো আগের দিনের মত সুন্দর ভাবে চিন্তাও করতে পারব না। তাই যখনই ভালো কিছু নিয়ে চিন্তা আসবে, তা ডায়েরীর কোন এক কোনায় লিখে রাখতে পারি। যেন আজকের সুন্দর আইডিয়াটা হারিয়ে না যায়। জীবন পরিবর্তন করার জন্য একটা সিম্পল আইডিয়াই যথেষ্ট।

লিখে রাখি, যতটুকু পারি। মস্তিষ্কটা খুবি অলস। খুবি অদ্ভুত। অদরকারী অনেক কিছুই স্টোর করে রাখবে। দরকারী গুলো লুকিয়ে রাখবে। দরকারের সময় আর খুঁজে পাওয়া যাবে না।

লিখে রাখি সব কিছু। নিজের লক্ষ্য। নিজের গল্প। কি চাই। কেন চাই। পেতে হলে কি কি করতে হবে। কিভাবে করতে হবে। এ জিনিস গুলো খুবি কাজে দেয়। নিজেকে নিজে মেন্টরিং করার মত। ভবিষ্যৎ এ কোন একদিন লিস্টে চোখ যাবে। মনে হবে কত বোকাই না ছিলাম। দেখা যাবে কত কিছুই করা হয়ে গিয়েছে। কত স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। দুই একটা রয়ে গিয়েছে। সে গুলো পূরণ করতে হবে। আর স্বপ্ন গুলো পূরণ করার জন্যই তো বেঁচে থাকা।


One thought on “স্বপ্নটাকে লিখে রাখি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *