ফোকাস

আমরা কিছু মানুষ কিছুই করি না। জীবন যে ভাবে চলছে সে ভাবেই সময় গুলো পার করে দেই।
কেউ কেউ অনেক কিছু ভাবি। অনেক কিছু করার চিন্তা করি। অনেক আইডিয়া মাথায় আসে। কিন্তু কোনটা নিয়েই কাজ করা হয় না।
আবার আমাদের মধ্যের কেউ কেউ সব কিছু করার চেষ্টা করি। সব কিছু চেষ্টা করতে গিয়ে কোনটাই করা হয় না। একটা শুরু করি, এরপর দেখা যায় কিছুদূর করার পর আরেকটা শুরু করি। এরপর আরেকটা। এভাবেই সময় গুলো দ্রুত চলে যায়। বছর শেষে হিসেব করলে দেখা যায় কিছুই করা হয় নি।
কিন্তু যারা সত্যিকারের কিছু করে। তারা অনেক কিছু নিয়ে ভাবে। অনেক কিছু নিয়ে চিন্তা করে। তারপর চিন্তা করে তার দ্বারা কি কি করা সম্ভব। তা করতে হলে কি কি করতে হবে। যা যা অসম্ভব, তা কেন অসম্ভব, তাও নিয়েও চিন্তা করে। এরপর প্রায়োরিটি সেট করে। এরপর ঐ প্রায়োরিটি অনুযায়ি একটা একটা করে কমপ্লিট করে। আমাদের মধ্যে আর তাদের মধ্যে এটাই পার্থক্য। বেশি কিছু না।
পরীক্ষায় ভালো করতে হবে? সব কিছু এক সাথে আমরা কোন দিন ও শেষ করতে পারব না। যে পড়াটা অবশ্যই পড়তে হবে, তা দিয়েই শুরু করি। ঐটা শেষ হলে আরেকটা পড়ি। এরপর আরেকটা। তাহলে দেখা যাবে সেমিস্টার শেষে ঠিকই ভালো রেজাল্ট হচ্ছে।
নতুন কিছু শিখতে হবে? শেখার জন্য অনেক কিছু আছে? সব কিছু এক সাথে কোন দিনও শেখা হবে না। একটা শিখতে গিয়ে তা বন্ধ করে আরেকটা শিখতে গেলে দুইটার একটাও শিখা হবে না। তাই নতুন কিছু শেখা শুরুর আগে আগের বিষয়টা শেখা হয়েছে কিনা, তা দেখতে হবে। ঐটা ঠিক মত শেষ হলেই নতুন আরেকটা শুরু করা যাবে।
আমরা মানুষ। আর মানুষের অনেক সীমাবদ্ধতা রয়েছে। আমরা মাল্টিটাস্ক করতে পারি না। আমরা কম্পিউটার না। আমাদের সময়ের সীমাবদ্ধতা রয়েছে। সল্প সময়ের মধ্যে আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা করা উচিত। কোন প্রজেক্ট শুরু করলে তা শেষ হওয়ার আগে নতুন কোন প্রজেক্ট শুরু না করাই ভালো। একটা প্রজেক্টের ফলাফল ঐটা শেষ করার আগে বুঝতে পারব না। যেটা শুরু করেছি, তা শেষ করলে ভালো কিছুই হবে। আর ভাল না হলেও অনেক অভিজ্ঞতা হবে। ঐ অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে পরের প্রজেক্ট আরো ভালো ভাবে করা যাবে। আর ভালো প্রজেক্ট একটাই যথেষ্ঠ।


One thought on “ফোকাস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *