কোন কিছু শুরু করার আগে

কোন কিছু শুরু করার আগে নিজের ইচ্ছেটাকে প্রাধান্য দেওয়া উচিত। যে সকল কারনে নিজের ইচ্ছেটাকে প্রাধান্য দেওয়া উচিত তা নিয়েই লিখছি…

কোন কিছু যখন আমরা শুরু করি, তখন হয়তো সবার আগে এ ভাবনটাই আশে “লোকে কি ভাববে” , “মানুষ কি বলবে” ইত্যাদি।

মানুষ বা লোক আপনি কিছু শুরু করলেও কিছু বলবে, শুরু না করলেও বলবে। শুরু না করলে বলবে এ ছেলেটা “সারা দিন বসে বসে বাপের টাকা নষ্ট করে, নিজে কিছু করে না… বা বলবে দেখ লোকটার দিকে সারাদিন বসে বসে আড্ডা দেয়। কোন কাজ নেই।। ইত্যাদি।

শুরু করলেও বলবে… যেমন এটা শুরু করছ কেন। আহ এটা করে তো সব নষ্ট করে ফেলছো। তোমার ক্যারিয়ার শেষ। ইত্যাদি।।
অথচ মজার ব্যাপার হচ্ছে ভালো কিছু করতে পারলে এ মানুষ গুলোই আবার প্রসংশা করতে করতে মুখে ফেনা তুলে ফেলবে। তাই শুরু করাই কি প্রধান কাজ হওয়া উচিত নয়?

আচ্ছা, শুরু তো করব, কি করা যায়? তাহলে বলি, অন্যের বুদ্ধিতে কাজ করার চেয়ে নিজের বুদ্ধিতে কাজ করা ভালো। আপনি কিসে ভালো তা আপনি ভালো জানেন। অন্য কেউ না। আপনার সম্পর্কে খুব সামান্য পরিমান জানতে পারবে পরিপার্শ্বের মানুষ। খুবি সামান্য। আর নিজেকে? সকল ভাবনাই তো আপনার… সেই ছোটবেলা থেকেই নিজেকে একটু একটু করে জেনে আসছেন। নিজের সম্পর্কে নিজে ছাড়া আর কে ভালো জানতে পারে?

আরো কারণ রয়েছে। অন্যের বুদ্ধিতে কাজ করার পর কোন এক সময় মনে হবে “I am not doing right things” বা আমি সঠিক কাজ করছি না। আমার এটা করা উচিত হয় নি। আমার ঐটা করলে আরো ভালো হতো। এমকি এমনই হয়।  ৫ জন মানুষকে জিজ্ঞেস করে শিউর হওয়া যেতে পারে। বা সময় করে অল্প কয়েক জন মানুষের জীবনের গল্প সম্পর্কে শুনা যেতে পারে।।

আর নিজে যখন নিজের বুদ্ধি বা নিজের ইচ্ছে কোন কিছু শুরু করি, তখন কি হয় জানেন? যখন ভুল করি তখন নিজে নিজেই তা থেকে উত্তরণের চেষ্টা করা যায়। ভুল করলে তখন অন্য কারো উপর দোষ চাপানো যায় না। আর আমরা বাঙালি, এ জিনিস্টা ভালোই পারি। তাই না?? যখন অন্যের উপর দোষটা চাপানো যাবে না, তখন  অবশ্যই তা নিজের উপর আসবে। ঐ দোষ টা বা ভুলটা কিভাবে সারিয়ে উঠা যায়, তাই ভাববো আমরা। তাই না? হ্যা, অবশ্যই তাই করব। আর যদি এমন কোন ভুল করি, যা থেকে কাটিয়ে উঠা যাবে না, তখন কি হবে জানেন? একটা ভালো শিক্ষা হবে। যা বাকি জীবনে অনেক বেশি বার কাজে লাগবে। যা আপনি কল্পনাও করতে পারবেন না।

হয়তো আবার দেখা যাবে ঐ ভুলটা থেকে শিক্ষা নিয়ে আরো বড় কিছু শুরু করতে পারবেন। হ্যা, তাই আরো বড়ো কিছু শুরু করা যাবে।

তাই কোন কিছু শুরু করার আগে নিজের ইচ্ছেটাকে প্রাধান্য দিয়ে শুরু করা উচিত।

প্ল্যানিং??
হ্যা, প্ল্যানিং করে শুরু করতে পারলে অনেক বেশি ভালো। অনেক সময় দেখা যায়  যে প্ল্যানিং করতে গিয়ে সব কিছু নষ্ট করে ফেলে। বা আগ্রহ হারিয়ে ফেলে। সে ক্ষেত্রে বলব আগ্রহ না হারিয়ে শুরু করা উচিত।   আর যারা শুরু করে তারাই সফল হয়।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *