কোন প্রোগ্রামিং বা কয়টা ল্যাঙ্গুয়েজ শিখব

নতুন যারা প্রোগ্রামিং শিখতে চায়, তারা এক ধরনের দ্বন্দ্ব ভুগে। প্রথম দ্বন্দ্ব হচ্ছে কোন ল্যাঙ্গুয়েজ শিখব।

এ ভাইয়া এটা শিখতে বলে। ঐ স্যার ঐটা শিখতে বলে। আমি তো শুনছি ঐ ল্যাঙ্গুয়েজের ভ্যালু অনেক বেশি। এভাবে একটা কনফিউশন তৈরি হয়। একটা হার্ড কিন্তু ট্রু কথা বলি। যত প্রোগ্রামারই দেখেছি, সবাই একের অধিক ল্যাঙ্গুয়েজ সম্পর্কে জানে। পরে নিজের যেটা ভালো লাগে, সেটা নিয়েই কাজ করে।

প্রফেশনালরা যেহেতু অনেক গুলো ল্যাঙ্গুয়েজ জানে, আমাকেও কি অনেক গুলো ল্যাঙ্গুয়েজ শিখতে হবে?

উত্তর হচ্ছে না। কয়টা ভাষা শিখব বা কোন ল্যাঙ্গুয়েজ দিয়ে শুরু করব এ দুইটা প্রশ্ন নিয়ে অনেক সময় নষ্ট করে ফেলে নতুনরা। অবশ্যই একটা প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ দিয়ে শুরু করতে হবে। একটা ল্যাঙ্গুয়েজ দিয়ে শুরু করলে নিজের সব ফোকাস একটার মধ্যেই থাকবে। সহজেই শেখা যাবে।
কোনটা দিয়ে শুরু করবেন, তা নিজের ইচ্ছে। যেটা ভালো লাগে। তা যদি পছন্দ না করতে পারেন তাহলে পাইথন বা সি/সি++ দিয়ে শুরু করতে পারেন। শুরু করার পর আপনি প্রোগ্রামিং কি, কিভাবে করে, কিভাবে লজিক্যাল চিন্তা করা যায় এসব জানতে পারবেন মাত্র। সাথে সাথেই মাইক্রোসফট বা গুগল তৈরি করে ফেলতে পারবেন না।

সিনট্যাক্স, লজিক্যালি চিন্তা করতে জানার পর এবার এগুলো কাজে লাগানোর সময়। ইত্যি মধ্যে আপনি নিজের অজান্তেই অন্যান্য অনেক গুলো ল্যাঙ্গুয়েজ সম্পর্কে জেনে ফেলবেন। নতুন দুই একটা প্রোগ্র্যামিং সিনট্যাক্স ও জেনে ফেলবেন। বুঝে ফেলবেন, আরে! সব গুলো ল্যাঙ্গুয়েজই তো প্রায় একই! হ্যা, তাই। একটা ল্যাঙ্গুয়েজ ভালো করে জানলে অন্য যে কোন ল্যাঙ্গুয়েজেই কাজ করা যাবে। সব কিছুই সহজ মনে হবে।

আর তখন সত্যিকারের একটা প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ পছন্দ করে নিতে পারবেন। যেটা দিয়ে আপনি আপনার স্বপ্ন পূরণ করবেন। যেটা দিয়ে পরবর্তী মাইক্রোসফট বা গুগল তৈরি করবেন।

একটা ভুল প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ শিখে ফেললে তাও কাজে লাগবে। মনে করার কারণ নেই যে আপনার সময় গুলোই নষ্ট হয়েছে। একটা দিয়ে শুরু করুন। পথ চলতে চলতেই পথ চেনা যায়। শুরু করলেই সব কিছু ক্লিয়ার হয়ে যাবে। প্রোগ্রামিং এর সুন্দর জগতে স্বাগতম 🙂

2 thoughts on “কোন প্রোগ্রামিং বা কয়টা ল্যাঙ্গুয়েজ শিখব

  1. হ্যা, একদম ঠিক বিষয়টি নিয়েই লিখেছেন। আপনার লেখাগুলো পড়ে অন্যরকম মজা পাই। ছোট ছোট বিষয়ও সুন্দর করে লিখেন আপনি।

Leave a Reply